Menu
 
       
বাংলাদেশ

গাজীপুরে বয়লার বিস্ফোরণ ঘটনায় নিহত ১০


 
গাজীপুরে বয়লার বিস্ফোরণ ঘটনায় নিহত ১০  25272 
 

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের কাশিমপুরের নয়াপাড়া এলাকায় সোমবার সন্ধ্যায় মালটি ফ্যাবস্ লিমিটেড নামের একটি পোশাক কারখানায় বয়লার বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। এতে নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাড়িয়েছে ১০ জনে, অর্ধশতাধিক আহত হয়েছে। হতাহতের সংখ্যা বাড়তে পারে বলে ধারণা করছে উদ্ধারকর্মীরা। নিহতদের মধ্যে একজনের পরিচয় জানা গেছে, তার নাম আল আমিন (৩০)। বাকী হতাহতদের পরিচয় জানা যায়নি। হতাহতের মধ্যে মঙ্গলবার সকাল ৮টায় আরো একজনকে থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। 

গাজীপুর ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারি পরিচালক মো. আখতারুজ্জামান লিটন জানান, খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের গাজীপুর, সাভারে ইপিজেড, কালিয়াকৈর ও টঙ্গী ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা রাত পৌনে আটটার দিকে ঘটনাস্থলে পৌছে উদ্ধার কাজ শুরু করে।

তিনি আরো জানান, সন্ধ্যা সোয়া ৭টার দিকে ওই কারখানায় বিকট শব্দে বয়লার বিস্ফোরণ ঘটে। এতে কারখানার চারতলা ভবনের দ্বিতীয়তলা পর্যন্ত একপাশের অংশ ধসে পড়ে। তবে কি কারণে বিষ্ফোরণ ঘটেছে তা জানাতে পারেননি তিনি।

 

বিষ্ফোরণের পর স্থানীয়রা ঘটনাস্থলে গিয়ে উদ্ধার কাজ শুরু করে। আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় কোনাবাড়ি, কাশিমপুর, গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এবং সাভারসহ বিভিন্ন হাসপাতাল ও ক্লিনিকে পাঠানো হয়।

স্থানীয়রা জানায়, ঈদের ছুটির পর কারখানাটি মঙ্গলবার খোলার কথা ছিল। তবে সোমবার ডাইং ইউনিটের বয়লার সেকশনটি চালু ছিল। নিচতলায় ১৫-২০ জন শ্রমিক কাজ করছিল। সন্ধ্যা সোয়া সাতটার দিকে হটাৎ করে বিকট শব্দে বয়লারটি বিষ্ফোরণ ঘটলে চার তলার ভবনের নীচতলা ও দুতলার দুই পাশের দেয়াল, দরজা-জানালা ও মেশিনপত্র উড়ে যায়। সেগুলো বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়ে থাকতে দেখা গেছে। এ সময় কারখানার সামনের রাস্তা দিয়ে যাতায়াতকারী বেশকিছু সাধারণ মানুষ ও শ্রমিক আহত হয়।

বিষ্ফোরেণের ফলে আশপাশের কারখানার ভবনগুলো কেঁপে উঠে এবং দরজা-জানালার কাঁচ ভেঙ্গে পড়ে। এতে আশপাশের শ্রমিক এবং সাধারণ মানুষের মাঝে ব্যাপক আতংক ছড়িয়ে পড়ে। ঘটনার পর ওই এলাকায় বিদ্যুৎ ও গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়া হয়।

গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক প্রণয় ভূষণ দাশ জানান, বিষ্ফোরণের ঘটনায় রাত সাড়ে ১০টা পর্যন্ত ৬ জনের মরদেহ এবং রুকন মিয়া (২৫) নামে এক শ্রমিককে গুরুত্বর আহতাবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

তিনি আরো জানান, নিহতদের মধ্যে একজনের পরিচয় শনাক্ত হয়েছে তার নাম আল আমিন (৩০) তার বাড়ি কাশিমপুর নয়াপাড়ায়।

দুর্ঘটনার খবর পেয়ে গাজীপুরের জেলা প্রশাসক ড. দেওয়ান মোহাম্মদ হুমায়ুন কবীর, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট মো: রাহেনুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাখাওয়াৎ হোসেন ও র‌্যাবের উর্র্ধতন কর্মকর্তারা রাতেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

 

তদন্ত কমিটি গঠন:

গাজীপুরের জেলা প্রশাসক ড. দেওয়ান মোহাম্মদ হুমায়ুন কবীর জানান, বয়লার বিষ্ফোরণের ঘটনায় গাজীপুরের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট রাহেনুল ইসলামকে প্রধান করে ৬ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। সাত কার্য দিবসের মধ্যে এ কমিটিকে তদন্ত রিপোর্ট জমা দিতে বলা হয়েছে। এ কমিটিতে পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস, শিল্প পুলিশসহ সংশ্লিষ্ট দফতরের কর্মকর্তাদের সদস্য করা হয়েছে। তিনি আরো জানান, নিহত প্রতিটি পরিবারকে তাৎক্ষণিক ভাবে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ২০ হাজার টাকা করে সহায়তার প্রদান করা হবে।

গাজীপুর ফায়ার সার্ভিসের উপ সহকারী পরিচালক আক্তারুজ্জামান লিটন আরো জানান, বিষ্ফোরণের ফলে নিহতদের চেহারা বিকৃত হয়ে পড়েছে। তাদেরকে কোনভাবেই চেনার উপায় নেই।


71 নিউজ টিভি'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।



71 নিউজ টিভি সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

 

Banner 2