Menu
 
       
ক্যাম্পাস

ঢাবি ছাত্রীর আত্মহত্যা নেপথ্যে ফেসবুক


 
ঢাবি ছাত্রীর আত্মহত্যা নেপথ্যে ফেসবুক  15210 
 

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ঃ রাত জেগে ফেসবুক ব্যবহারকে কেন্দ্র করে মায়ের সাথে বাকবিন্ডায় অভিমান করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) এক ছাত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। মোহসীনা মেধা নামে ওই ছাত্রী ঢাবির আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। আজ ভোর চারটায় রাজধানীর ফার্মগেটের পূর্ব নাখালপাড়ার একটি বাসায় তিনি গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন। ওই বাসায় মোহসীনামেধা বাবা-মায়ের সঙ্গে থাকতেন বলে জানা গেছে। তার গ্রামের বাড়ি কুমিল্লা জেলায়। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর (ভারপ্রাপ্ত) এম আমজাদ আলী সেভেনটি ওয়ান নিউজ বলেন, ‘আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগ ওই ছাত্রীর মৃত্যুর খবর পেয়েছে বলে আমাকে জানিয়েছে।’ আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক এহসানুল হক বলেন, ‘আমরা অফিসিয়ালি এখনো কিছু জানতে পারিনি। তবে বিভাগের কিছু শিক্ষার্থী মেধা নামে এক ছাত্রী পারিবারিক সমস্যার কারণে আত্মহত্যা করেছে বলে আমাকে জানিয়েছে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে আত্মহত্যাকারী শিক্ষার্থীর এক বান্ধবী বলেন, ‘‘বাবা-মায়ের সঙ্গে অভিমান করে তিনি আত্মহত্যা করেছেন। আমি তাদের বাসায় গিয়েছিলাম।’ ওর আম্মু বলছিলেন, ‘রাত দুটোর সময় এসে দেখি মেধা মোবাইল টিপছিলো, তিনটার সময় এসেও দেখি মোবাইল টিপতে। তখন আমি বকাবকি করি। পরে রাত চারটার সময় এসে দেখি মৃত। এই টুকু বকাবকিতে অভিমান করে মেয়েটি আত্মহত্যা করলো এই কথা বলে ওর মা বিলাপ করছিলেন।’’

জাহিদ হাসান
৭১ নিউজ টিভি,
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি।


71 নিউজ টিভি'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।



71 নিউজ টিভি সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

 

Banner 2